ঢাকা May 20, 2024, 11:44 pm
  1. Arts & EntertainmentCelebrities
  2. blog
  3. অন্যান্য
  4. অপরাধ
  5. আইন – আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. উপ-সম্পাদকীয়
  9. কবিতা
  10. কৃষি
  11. কৃষি ও কৃষক
  12. কৌতুক
  13. খেলা ধূলা
  14. খেলাধুলা
  15. গণমাধ্যম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কেন্দুয়া কালিবাড়ী বাজারের দীর্ঘসূত্রী অপরিষ্কার ড্রেনের কারণে চরম জনদুর্ভোগ লাঘবে স্থানীয়দের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ প্রসংশিত

Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥
কেন্দুয়া কালিবাড়ী বাজারের দীর্ঘসূত্রী অপরিষ্কার ড্রেনের কারণে চরম জনদুর্ভোগ লাঘবে স্থানীয়দের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ সর্বমহলে প্রসংশিত হয়েছে। কেননা জামালপুর সদর উপজেলার ১নং কেন্দুয়া ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী কেন্দুয়া কালিবাড়ী বাজারে দীর্ঘদিন ধরে অপরিষ্কার ড্রেনেজ ব্যবস্থার কারণে বাজারটির ব্যবসায়ী এবং জনসাধারণের দুর্ভোগের যেন অন্ত ছিলনা। অপরদিকে দেখারও ছিলনা কেউ।
এ বিষয়ে ভুক্তভোগী এলাকাবাসী ইউনিয়ন পরিষদসহ উপজেলা প্রশাসনেও আবেদন-নিবেদন করে কোন প্রতিকার পাননি। এদিকে প্রতিবছর বর্ষা মওসুমে এ ড্রেনগুলো থেকে নির্গত নোংড়া পানির কারণে জনস্বাস্থ্য মারাত্মকভাবে হুমকীর সম্মুখীন হয়ে পড়ত। অপরদিকে এলাকাবাসীর অভিযোগ, প্রতিবছর কর্তাব্যক্তিগণ শুধু জুন-ডিসেম্বর করেই কাটিয়ে দেন বছরের পর বছর। অথচ বাজার ইজারা নেওয়ার সময় প্রতি বছর সরকারীভাবে ১৫/২০ লাখ টাকার শতকারা ৫ভাগ অর্থ স্থানীয় প্রশাসন কেটে নেয় বাজারের ড্রেনেজ ব্যবস্থা পরিস্কার ও সচল রাখতে ড্রেনগুলোর মেরামত ব্যায়ের জন্য। অথচ সেটা সম্পূর্ণই ছিল শুভঙ্করের ফাঁকি! জনমনে এ অর্থের গন্তব্যের হদিস নিয়ে প্রশ্নের উদ্রেক হয়েছে বারংবার। তবু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের টনক নড়েনি এতটুকু।
আরও জানা যায়, গত পাঁচ-সাত বছরের মধ্যে মাত্র গতবছর এলজিআরডি কর্তৃক রাস্তার দুই পাশের ড্রেনগুলো পরিষ্কার করার কারণে প্রধান সড়কের দুর্ভোগ কিছুটা কমেছিল। কিন্তু বাজারের ভিতর আরও যেসব ড্রেন রয়েছে সেসব ময়লা আবর্জনায় বন্ধ ছিল। সে কারণে একটু বৃষ্টিতেই এ বাজারে হাঁটুুজল এবং দুর্গন্ধের শেষ নেই। এবিষয়ে সংশ্লিষ্ট মহলের সুনজর প্রত্যাশা করেও যখন লাভ হচ্ছিল না। তখন গতকাল ২৯ মে কেন্দুয়া বাজারের ব্যবসায়ী ও ইজারাদার, শেখ ফকরুল আলম পিন্টু, খালেদুজ্জামান প্রদীপ, আনোয়ার হোসেন মানু, শেখ ফখরুল আলম লিটু, মাসুদ রানা টিক্কি, মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেলসহ স্থানীয়রা এগিয়ে এসে নিজেদের অর্থায়ন এবং সহযোগিতায় তিন বছর আগের মত এবারও দ্বিতীয়বার বাজারের ড্রেনগুলো পরিস্কার করা হয়। তাদের এ ব্যতিক্রমী ও জনবান্ধব উদ্যোগকে সাধুবাদ ও স্বাগত জানিয়েছেন এলাকাবাসী।