বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:২৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে নবীন বরণ-জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থী সংবর্ধনা রঙিন ফুলকপি চাষ করে জীবন রাঙাতে চায় ঝিনাইগাতীর শফিকুল  ১নং কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল সফলতার সাথে ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কাজ করে আজ প্রথম বছর পেরিয়ে দ্বিতীয় বছরে পদার্পণ হাজীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ কেন্দুয়া বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিলেন কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল কুটামনি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত কেন্দুয়া বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরন বকশীগঞ্জ আ.লীগ সভাপতির বাসায় দূর্ধষ ডাকাতি জামালপুরের মেষ্টা ইউনিয়নে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, ধর্ষক চাচা গ্রেপ্তার জামালপুরে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ৩২তম বার্ষিক সদস্য সভা অনুষ্ঠিত
জামালপুরে ছাত্র ঐক্য ক্লাব নিয়ে উভয় পক্ষের সংঘর্ষ

জামালপুরে ছাত্র ঐক্য ক্লাব নিয়ে উভয় পক্ষের সংঘর্ষ

জামালপুর প্রতিনিধি :
জামালপুর সদর উপজেলার তিতপল্লা ইউনিয়নের পাবই ছাত্র ঐক্য ক্লাব নির্মাণ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে গতকাল বুধবার দুপুরে পাবই বাজারে এ ঘটনা নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন তিতপল্লা ইউপি চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ সেলিম। এ সমাবেশে ছিলেন ইউপি সচিব রফিকুল ইসলাম তালুকদার, সাবেক আওয়ামী নেতা মিলন মিয়া, শরিফ উদ্দীন ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম নয়নতারা।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দেন ইউপি চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ সেলিম। তিনি বলেন উপজেলার পাবই বাজারের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন পাবই ছাত্র ঐক্য নামে একটি পুরনো ক্লাব ছিল। সেই ক্লাবে সোনার বাংলা উচ্চবিদ্যালয়ের বর্তমান ও প্রাক্তন ছাত্ররা মাঝে মধ্যে আনন্দ উল্লাস করত সেখানে। ছাত্রদের সেই ক্লাবটি আমি অনুদান দিয়ে মেরামত করতেছিলাম। ক্লাবটি মেরামতকালে গত মঙ্গলবার বিকেলে জামালপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক তার লোকজনদের দিয়ে ক্লাবটির নির্মাণ কাজে বাঁধা দিলে ছাত্র ঐক্য ক্লাবের সদস্য ও আব্দুর রাজ্জাকের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। পরে আমি বিষয়টির সমঝোতা করতে গেলে শাবল দিয়ে আমাকে আঘাত করে উপ পরিচালকের লোকজন। এছাড়া বাজার সংলগ্ন একটি ওয়াক্ত নামাজ পড়ার জন্য মসজিদে মাইক আজান বন্ধের বিষয়ে আমার বিরুদ্ধে গুজব রটান প্রতিপক্ষরা। ওই মসজিদে বর্তমানে ওয়াক্ত নামাজ পড়ার জন্য আজান চলছে। এতে কোনো বাধা দেয়ার ঘটনা ঘটেনি।
এ ব্যাপারে জামালপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ডিডি আব্দুর রাজ্জাক বলেন আমাদের পারিবারিক গোরস্থানের প্রাচীরের উপরে চেয়ারম্যানের লোকজন ক্লাব নির্মাণ করতেছিলো। এতে বাধা দেয়ায় উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। ওই রাতেই নারায়ণপুর পুলিশ ফাড়িঁর কর্মকর্তারা ঘটনস্থল পরিদর্শন করেছে।
এ বিষয়ে নারায়নপুর তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর হাবিবুর রহমান বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। কোনো মামলা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেবো।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply




© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY SheraWeb.Com