শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:৪৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম
বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে নবীন বরণ-জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থী সংবর্ধনা রঙিন ফুলকপি চাষ করে জীবন রাঙাতে চায় ঝিনাইগাতীর শফিকুল  ১নং কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল সফলতার সাথে ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কাজ করে আজ প্রথম বছর পেরিয়ে দ্বিতীয় বছরে পদার্পণ হাজীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ কেন্দুয়া বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিলেন কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল কুটামনি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত কেন্দুয়া বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরন বকশীগঞ্জ আ.লীগ সভাপতির বাসায় দূর্ধষ ডাকাতি জামালপুরের মেষ্টা ইউনিয়নে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, ধর্ষক চাচা গ্রেপ্তার জামালপুরে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ৩২তম বার্ষিক সদস্য সভা অনুষ্ঠিত
জামালপুরে লকডাউন শেষে বিট পুলিশিং কার্যক্রম আবার শুরু

জামালপুরে লকডাউন শেষে বিট পুলিশিং কার্যক্রম আবার শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক  ।।
দীর্ঘদিন লকডাউন শেষে জামালপুর বিট পুলিশিং কার্যক্রম আবার শুরু হয়েছে। এলাকা থেকে মাদক, জুয়া, নারী-শিশু নির্যাতন প্রতিরোধসহ পুলিশিং সেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে বিট পুলিশিং কার্যক্রম ২০২০ সাল থেকে শুরু হয়। করোনাকালে কিছুটা স্থবিরতা সৃষ্টি হলেও পুনরায় পূর্ণগতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে।
২৮ আগস্ট ৭ নম্বর বিট পুলিশ কার্যালয়ে মানবাধিকারকর্মী জাহাঙ্গীর সেলিমের সভাপতিত্বে বিশেষ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম খান।
অনুষ্ঠানে বিট পুলিশ কর্মকর্তা তারিকুজ্জামেনের সঞ্চালনায় আলোচনা অংশ নেন ১২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুল ইসলাম মিল্টন, মহিলা কাউন্সিলর নাসরিন বেগম, নারী শিশু বিষয়ক পুলিশ কর্মকর্তা জ্যোৎস্না বেগম, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়াউল হক, সাধারণ সম্পাদক সেজান মাহমুদ শিমুল, মসজিদের ইমাম মোজাম্মেল হক, আইনজীবী সহকারী আক্তার হোসেন, আওয়ামী লীগনেতা সোহরাব হোসেন, উদয়ন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান অপু প্রমুখ।
সভায় ১১ ও ১২ নম্বর ওয়ার্ডের প্রতিটি গ্রামে বিট পুলিশিং কার্যক্রম সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য আলোচনা সভার আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। প্রতি শনিবার করে কর্মসূচি আয়োজন করা হবে বলে প্রস্তাব করা হয়। ১১ নম্বর ওয়ার্ডে আলাদা বিট পুলিশ করা হবে বলে সভা সূত্র জানায়।
আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে প্রতিদিন বিট পুলিশ কর্মকর্তা নিয়মিতভাবে অফিসভিত্তিক কার্যক্রম পরিচালনা শুরু করবেন বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
প্রধান অতিথি ওসি রেজাউল ইসলাম খান বলেন, জিডিসহ সামান্য কারণে সাধারণ মানুষকে আর থানায় যেতে হবে না। জামিন অযোগ্য ধারা ব্যতিত সাধারণ ঘটনা বিট পুলিশ অফিসে বসেই নিষ্পত্তি করা হবে।
বিভিন্ন গ্রাম থেকে আসা উপস্থিত প্রতিনিধিরা কার্যক্রমের প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং এখানে যেন কোন দালাল চক্র গড়ে না উঠে সেই দাবিও জানান।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply




© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY SheraWeb.Com