শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:৪৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে নবীন বরণ-জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থী সংবর্ধনা রঙিন ফুলকপি চাষ করে জীবন রাঙাতে চায় ঝিনাইগাতীর শফিকুল  ১নং কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল সফলতার সাথে ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কাজ করে আজ প্রথম বছর পেরিয়ে দ্বিতীয় বছরে পদার্পণ হাজীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ কেন্দুয়া বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিলেন কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল কুটামনি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত কেন্দুয়া বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরন বকশীগঞ্জ আ.লীগ সভাপতির বাসায় দূর্ধষ ডাকাতি জামালপুরের মেষ্টা ইউনিয়নে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, ধর্ষক চাচা গ্রেপ্তার জামালপুরে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ৩২তম বার্ষিক সদস্য সভা অনুষ্ঠিত
ট্রাকে করে গ্রামে যাচ্ছে মানুষ

ট্রাকে করে গ্রামে যাচ্ছে মানুষ

স.স.প্রতিদিন ডেস্ক ।।

পণ্য পরিবহনের একটি খালি ট্রাক। ভেতরে কোনো মালামাল না থাকলেও ত্রিপল দিয়ে ট্রাকটিতে ঢাকনা দেওয়া। ভেতরে বসে আছেন গোটা দশেক মানুষ। তাঁদের সবার উদ্দেশ্য বাড়ি যাওয়া।

সোমবার রাত ১০ টার দিকে এই চিত্র রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি শপিং সেন্টারের বিপরীত পাশের।

বিশেষ করে রাতে এই জায়গায় রাস্তার পাশে ব্যাগপত্র নিয়ে ট্রাকের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকেন অনেকে। খালি ট্রাক আসতে দেখলেই, হাত নেড়ে গন্তব্যের নাম বলেন। ট্রাক থামলে ভাড়া নিয়ে চলে দর-কষাকষি। বনিবনা হলে উঠে পড়েন ট্রাকে। কঠোর বিধি-নিষেধের মধ্যে ট্রাকে করে এভাবে বাড়ি যাচ্ছেন নিম্ন আয়ের অনেক মানুষ।

বগুড়াগামী একটি ট্রাকে বসে ছিলেন নুরু মিয়া। পেশায় রিকশা চালক। নুরু মিয়া বলেন, ‘হুনছি লকডাউন নাকি বাড়াব। ঢাকা থাইক্কা কি করতাম। তাই বাড়ি চইলা যাইতাসি।’

নুরু মিয়ার সঙ্গে ওই ট্রাকে বসে ছিলেন আরও ৮ থেক ১০ জন মানুষ। সবাই গ্রামে যাচ্ছেন বলে জানান। বগুড়া পর্যন্ত ৩০০ টাকা ভাড়া নিচ্ছে ট্রাকের চালক।

ঢাকায় তেজতুরী বাজারে একটি মেসে থেকে দিনমজুর হিসবে কাজ করতেন ইদ্রিস আলী। চলমান কঠোর বিধিনিষেধে কাজের সুযোগ কমে গেছে। একদিন কাজ জুটলে আরেকদিন জুটে না বলছিলেন তিনি। ইদ্রিস আলী বলেন, ‘ঢাকায় থাকলে তো না খেয়ে মরা লাগব। মেস বন্ধ, কাজ নেই, দোকানি বাকি দেয় না। এর চাইতে গ্রামে গিয়ে বাড়ির লোকদের সঙ্গে মরাই ভালো।’

পাবনা থেকে সবজি নিয়ে আসেন ট্রাক চালক চুন্নু মিয়া। তিনি বলেন, ‘ঢাকা থেকে ফেরার সময় রাস্তায় অনেক লোক দাঁড়িয়ে থাকে। তারা নিয়ে যেতে অনুরোধ করে।আমরাও নিয়ে যাই। বিনিময়ে যাত্রীরা কিছু টাকা দেয়।’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply




© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY SheraWeb.Com