বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৩১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
গজনী অবকাশে মহাআনন্দের ছড়াছড়িতে দৈনিক সত্যের সন্ধানে প্রতিদিন পত্রিকার ১০ম বর্ষে পদার্পণের অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে নবীন বরণ-জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থী সংবর্ধনা রঙিন ফুলকপি চাষ করে জীবন রাঙাতে চায় ঝিনাইগাতীর শফিকুল  ১নং কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল সফলতার সাথে ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কাজ করে আজ প্রথম বছর পেরিয়ে দ্বিতীয় বছরে পদার্পণ হাজীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ কেন্দুয়া বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিলেন কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল কুটামনি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত কেন্দুয়া বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরন বকশীগঞ্জ আ.লীগ সভাপতির বাসায় দূর্ধষ ডাকাতি জামালপুরের মেষ্টা ইউনিয়নে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, ধর্ষক চাচা গ্রেপ্তার
তানোরে ধর্ষণ চেস্টার অভিযোগে আটক ব্যক্তিকে ১৫৪ ধারায় চালান

তানোরে ধর্ষণ চেস্টার অভিযোগে আটক ব্যক্তিকে ১৫৪ ধারায় চালান

রাজশাহী প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর তানোরের মহানগর ক্লিনিকের রিসিপশন কর্মীকে ধর্ষণ চেস্টার অভিযোগে হাতেনাতে আটক ব্যক্তিকে ১৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। এদিকে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে জনমনে মিশ্রপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে উঠেছে সমালোচনার ঝড়, বইছে মুখরুচোক নানা গুঞ্জন।

জানা গেছে, ১ আগষ্ট রোববার দিবাগত রাত ১২টার দিকে তানোর পালপাড়া গ্রামে ওই নারীর ঘরে একই গ্রামের মৃত পূন্য চন্দ্র কর্মকারের পুত্র দলিল লেখক উত্তম চন্দ্র কর্মকারকে আপত্তিকর অবস্থায় ঘরে আটকে রেখে তার দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। এ সময় সেখানে চরম উত্তেজনার সৃস্টি হয়। এদিকে খবর পেয়ে পুলিশ সকালে উত্তমকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উত্তমকে হাজতে না রেখে পাশের ঘরে রেখে সকাল থেকে প্রায় সন্ধ্যা অবধী দফায় দফায় দেনদরবার করে ১৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখানো হয়। এ ঘটনায় ওই নারীর দেবর বাদি হয়ে থানায় মামলা করতে চাইলে রহস্যজনক কারণে পুলিশ তার অভিযোগ নিতে অপারগতা প্রকাশ করে। ওই নারীর দেবর সুফল বলেন, উত্তমকে তারা আপত্তিকর অবস্থায়

হাতে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়ে তিনি নিজে বাদি হয়ে মামলা করতে চাইলে তিনি বাদি হতে পারবেন না বলে পুলিশ তাকে ফিরিয়ে দিয়েছেন। তিনি বলেন, উত্তম এর আগেও রেজিস্ট্রি অফিসের এক নারী কর্মী ও মোহর গ্রামের আদিবাসী যুবতিকে ধর্ষণ করতে গিয়ে ধরা পড়েছিল। কিন্তু টাকার জোরে উত্তম বার বার পার পেয়ে যায়। জনৈক সুনিল দাস বলেন, উত্তমের মতো লম্পটের কারণে পুরো পাড়ার দুর্নাম তার দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি হওয়া উচিৎ বলে তিনি দাবি করেন। এ বিষয়ে তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)রাকিবুল হাসান বলেন,মেয়ের কোন অভিযোগ না থাকায় উত্তম কুমারকে ১৫৪ ধারায় গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি বলেন, আগামীকাল সকালে তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হবে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply




© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY SheraWeb.Com