ঢাকা February 24, 2024, 4:32 am
  1. Arts & EntertainmentCelebrities
  2. blog
  3. অন্যান্য
  4. অপরাধ
  5. আইন – আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. উপ-সম্পাদকীয়
  9. কবিতা
  10. কৃষি
  11. কৃষি ও কৃষক
  12. কৌতুক
  13. খেলা ধূলা
  14. খেলাধুলা
  15. গণমাধ্যম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মেলান্দহের কাপাসহাটিয়ায় মসজিদের রাস্তা নিয়ে দীর্ঘসূত্রী বিরোধ মিটিয়ে দিলেন ফারুক চৌধুরী

Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥
জামালপুর জেলার মেলান্দহের ১০নং ঝাউগড়া ইউনিয়নের দক্ষিণ কাপাসহাটিয়া জামে মসজিদের রাস্তা নিয়ে দীর্ঘসূত্রী বিরোধ অবশেষে মিটিয়ে দিলেন জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জামালপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জননেতা আলহাজ্ব ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী। এদিকে তিনি শুধু দীর্ঘসূত্রী বিরোধই মিটিয়ে দেননি উপরন্তু দক্ষিণ কাপাসহাটিয়া জামে মসজিদে প্রবেশের ৬৫ফুট রাস্তার উপর নির্মিত সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে রাস্তাটি পূণরুদ্ধারসহ আরসিসি ঢালাইয়ের মাধ্যমে পাকাকরণ করে স্থায়ীভাবে নির্মাণের সকল খরচ বহন করে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন।
উল্লেখ্য গত ২৮ মে শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর এই রাস্তাটি বেদখলকারী কাপাসহাটিয়া গ্রামের জনৈক মৃত লোকমান আলীর ছেলে শাহ্ আলম কর্তৃক প্রতিবাদী মুসুল্লী একই গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে মকবুল হোসেনকে গলাকেটে হত্যার অপচেষ্টা ও তার সহোদর ভাই মোঃ তারা মিয়াকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করার ঘটনা ঘটার পর এ বিষয়ে মেলান্দহ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। মেলান্দহ থানার মামলা নং-২৪, তাং-২৮/৫/২০২১। এ ঘটনাটি স্থানীয় এলাকাবাসী জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জামালপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জননেতা আলহাজ¦ ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরীর কাছে জানালে তিনি গত ১০ জুন ১০নং ঝাউগড়া ইউনিয়নের দক্ষিণ কাপাসহাটিয়া জামে মসজিদের রাস্তাটি সরেজমিন পরিদর্শন করে এ নিয়ে দীর্ঘসূত্রী বিরোধ অবশেষে মিটিয়ে দেন। আর রাস্তাটি বেদখলকারী কাপাসহাটিয়া গ্রামের জনৈক মৃত লোকমান আলীর ছেলে শাহ্ আলম কর্তৃক হামলার ঘটনায় আহত একই গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে মকবুল হোসেন ও তার সহোদর ভাই মোঃ তারা মিয়াকে শাহ্ আলমের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় এবং গ্রামবাসীর কাছে হাতজোড় করে ক্ষমা প্রার্থনা করিয়ে বিরোধ নিষ্পত্তি করেন। শুধু তাই নয় উপরন্তু দক্ষিণ কাপাসহাটিয়া জামে মসজিদে প্রবেশের ৬৫ফুট রাস্তার উপর নির্মিত সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে রাস্তাটি পূণরুদ্ধারসহ আরসিসি ঢালাইয়ের মাধ্যমে পাকাকরণ করে স্থায়ীভাবে নির্মাণের সকল খরচ বহন করে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন।