বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:১৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
গজনী অবকাশে মহাআনন্দের ছড়াছড়িতে দৈনিক সত্যের সন্ধানে প্রতিদিন পত্রিকার ১০ম বর্ষে পদার্পণের অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে নবীন বরণ-জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থী সংবর্ধনা রঙিন ফুলকপি চাষ করে জীবন রাঙাতে চায় ঝিনাইগাতীর শফিকুল  ১নং কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল সফলতার সাথে ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কাজ করে আজ প্রথম বছর পেরিয়ে দ্বিতীয় বছরে পদার্পণ হাজীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ কেন্দুয়া বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিলেন কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল কুটামনি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত কেন্দুয়া বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরন বকশীগঞ্জ আ.লীগ সভাপতির বাসায় দূর্ধষ ডাকাতি জামালপুরের মেষ্টা ইউনিয়নে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, ধর্ষক চাচা গ্রেপ্তার
মেষ্টার ঝিনাই নদীর মাঝ দিয়ে বয়ে যাওয়া দুই উপজেলার সীমানা নির্ধারণ না থাকায় অবাধে ব্যবহৃত হচ্ছে অবৈধ ড্রেজিং ॥ নেই প্রশাসনের তদারকি

মেষ্টার ঝিনাই নদীর মাঝ দিয়ে বয়ে যাওয়া দুই উপজেলার সীমানা নির্ধারণ না থাকায় অবাধে ব্যবহৃত হচ্ছে অবৈধ ড্রেজিং ॥ নেই প্রশাসনের তদারকি

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥
জামালপুর সদর উপজেলার ১৩নং মেষ্টা ইউনিয়ন ও মেলান্দহ উপজেলার ঝাউগড়া ইউনিয়নের মাঝ দিয়ে বয়ে গেছে ঝিনাই নদী। আর এই নদী থেকেই অবৈধভাবে প্রতিনিয়ত ড্রেজিং এর মাধ্যমে বালু উত্তোলন করে আসছে একটি প্রভাবশালী মহল। মাঝে মধ্যে প্রশাসন ব্যবস্থা নিলেও হয়নি কোনো কাজের কাজ। অপরদিকে প্রশাসনের নাকের ডগায় প্রতিনিয়ত এই সকল অবৈধ ড্রেজিং মেশিন চলে আসলেও কেউ যেন কিছুই জানে না। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালী দীর্ঘদিন যাবৎ হাজীপুর বাজার হতে গগনপুর পর্যন্ত রাস্তার মাঝে পাইপ দিয়ে এবং পূর্ব-পশ্চিম ঘোষেরপাড়া পর্যন্ত, সরদার বাড়ী- চর মৌহাডাঙ্গা রাস্তায় প্রায় ২০-২৫ টি ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করে আসলেও জানেন না স্থানীয় ভূমি অফিস কর্মকর্তাগণ।
এ বিষয়ে স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, আমরা আমাদের ফসলের জমি বাঁচানোর জন্য বারবার চেষ্টা করলেও বন্ধ করতে পারিনি এই বালু উত্তোলন। প্রশাসনের অনেকেই জানে, যার কারণে বেপোরোয়াভাবে অবৈধভাবে উত্তোলন করা হচ্ছে বালু। এতে ক্ষতি হচ্ছে আমাদের ফসলের জমি ও বসতবাড়ী। ক্ষতি হচ্ছে ঝিনাই নদীর উপর হাজীপুর-গাজীপুর ব্রিজের একাংশ। ধ্বংস হচ্ছে সরকারী সম্পদ। শুধু মাত্র দুই উপজেলার সীমানা নির্ধারণ না থাকার কারণে ঝিনাই নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী ড্রেজার মেশিন মালিকদের বিরুদ্ধে জোরালো অভিযান চালাতে পারে না প্রশাসন। তাই এ ব্যাপারে জরুরী ভিত্তিতে ঝিনাই নদীর মাঝে দুই উপজেলার সীমানা নির্ধারণ করে জরুরী ভিত্তিতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী ড্রেজার মালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন উভয় উপজেলার সচেতন মহল। <!- start disable copy paste –></!->

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply




© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY SheraWeb.Com