বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:৩২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
গজনী অবকাশে মহাআনন্দের ছড়াছড়িতে দৈনিক সত্যের সন্ধানে প্রতিদিন পত্রিকার ১০ম বর্ষে পদার্পণের অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে নবীন বরণ-জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থী সংবর্ধনা রঙিন ফুলকপি চাষ করে জীবন রাঙাতে চায় ঝিনাইগাতীর শফিকুল  ১নং কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল সফলতার সাথে ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কাজ করে আজ প্রথম বছর পেরিয়ে দ্বিতীয় বছরে পদার্পণ হাজীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ কেন্দুয়া বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিলেন কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল কুটামনি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত কেন্দুয়া বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরন বকশীগঞ্জ আ.লীগ সভাপতির বাসায় দূর্ধষ ডাকাতি জামালপুরের মেষ্টা ইউনিয়নে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, ধর্ষক চাচা গ্রেপ্তার
শেরপুরে শিক্ষকের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী হামলা ও জমি দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

শেরপুরে শিক্ষকের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী হামলা ও জমি দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার: শেরপুরে উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী হামলা চালানোর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছে তার আপন চাচা ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আবু তারিক।
৬ অক্টোবর সকাল ১১ টায় শেরপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এক লিখিত বক্তব্যে আবু তারিক বলেন, আমি শেরপুর সদর উপজেলার চরশেরপুর ইউনিয়নের অন্তর্গত যোগিনীবাগ গ্রামের বাসিন্দা। আমি আমার পৈত্রিক সম্পত্তি ওয়ারিশ অনুযায়ী ভাগ করে নেই। ভাগ করার ফলে আমার বড় ভাই এ.কে.এম আসর ১১১ শতক জমি ভাই বোনের অংশ পায়। সে আজ পর্যন্ত ১২৬.৪৬ শতক ভোগ দখল করে আসছে আমরা জমি চাইতে গেলে বিভিন্ন টালবাহানা করতে থাকে যার ফলে পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে আমি আমার হিসাব অনুযায়ী ২৫ শতক জমি দান করি। আমার জায়গার মধ্যে ঘর উঠিয়ে বেদখল করে রেখেছে। আমরা গত ১০ আগষ্ট তারিখ সকাল আনুমানিক ৮ টা ৩০ ঘটিকার সময় আর.এস ৮ নং খতিয়ানে ৪১৫ নং দাগে আইল বাধতে গেলে আমার বড় ভাইয়ের সন্তান শেরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ফল ইসলাম মিল্টন মাস্টার মাসুদ রানা শিহাব ও মোঃ রেজাউর রহমান সেলিম এর নেতৃত্বে যোগসাজলে ভাড়া করা সন্ত্রাসীসহ সবাই মিলে আমাকে আমার ছেলেমেয়ে এবং আমার স্ত্রীর উপর হামলা চালিয়ে মারপিট করে এরপর আমার ছোট মেয়ে ১৯৯ এ ফোন করলে শেরপুর সদরের এস আই মাহমুদ ঘটনাস্থলে আসে। এরপর একই দিনে মাসুদ রানা শিহাব তার বোন শারমিনের মাথা কেটে সদর হাসপাতালে ভর্তি করায় এবং অবৈধ প্রভাব খাটিয়ে ৩২৬ ধারায় সার্টিফিকেট উঠিয় ৩২৬ এ আমাদের ফাঁসানোর ষড়যন্ত্র করে। যাহা বানোয়াট এবং সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমার ছেলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ইউনিভার্সিটিতে পড়ে, আমার বড় মেয়ে সিলেট এম.সি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে এবং ছোট মেয়ে শেরপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৯ম শ্রেণির একজন নিয়মিত ছাত্রী। আমি শেরপুর পৌরসভার ইউজিপ ৩ প্রকল্পের উপসহকারী প্রকৌশলী হিসাবে কর্মরত আছি। আমার স্ত্রী একজন গৃহিনী। আমার বড় ভাইয়ের ছেলে শেরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলাম মিল্টন মাস্টারের মিথ্যা মামলায় আমাদের সাজানো সংসার নষ্ট হচ্ছে। আমি ও আমার পরিবার এমন জগন্য কাজ থেকে মুক্তি চাই।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply




© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY SheraWeb.Com