শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:১৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম
বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে নবীন বরণ-জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থী সংবর্ধনা রঙিন ফুলকপি চাষ করে জীবন রাঙাতে চায় ঝিনাইগাতীর শফিকুল  ১নং কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল সফলতার সাথে ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কাজ করে আজ প্রথম বছর পেরিয়ে দ্বিতীয় বছরে পদার্পণ হাজীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ কেন্দুয়া বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিলেন কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল কুটামনি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত কেন্দুয়া বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরন বকশীগঞ্জ আ.লীগ সভাপতির বাসায় দূর্ধষ ডাকাতি জামালপুরের মেষ্টা ইউনিয়নে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, ধর্ষক চাচা গ্রেপ্তার জামালপুরে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ৩২তম বার্ষিক সদস্য সভা অনুষ্ঠিত
শ্রীবরদীতে গৃহবধূ ধর্ষনের অভিযোগে আটক-৩

শ্রীবরদীতে গৃহবধূ ধর্ষনের অভিযোগে আটক-৩

শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি: শেরপুরের শ্রীবরদীতে গৃহবধূ (২০) কে গণধর্ষনের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত ২৯ নভেম্বর রাতে উপজেলার খড়িয়াকাজির চর ইউনিয়নের লংগরপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে গণধর্ষনের ঘটনা ঘটে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ৩০ নভেম্বর মঙ্গলবার দিবাগত রাতে শ্রীবরদী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে এজহার নামীয় ৩ জনকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলো, লংগরপাড়া গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে কামরুজ্জামান (২৩), দুদু মিয়ার ছেলে শফিকুল ইসলাম (২৭) ও জামালপুর সদরের দেউরপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল সেকের ছেলে আয়নাল হক (৫০)। আটককৃতদের ১ ডিসেম্বর বুধবার সকালে শেরপুর কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

 

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কয়েক দিন আগে ওই গৃহবধূ উপজেলার উত্তর খড়িয়া গ্রামে বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসেন। সেই সুবাধে বাড়ি পাশ্ববর্তী কামরুজ্জামান গৃহবধূর কাছ থেকে ১ হাজার টাকা ধার নেয়। গত সোমবার দুপুরে ওই গৃহবধূ কামরুজ্জামানের কাছে পাওনা টাকা ফেরত চায়। একই দিন সন্ধ্যার পর টাকা দেওয়ার কথা বলে কামরুজ্জামান গৃহবধূকে লঙ্গরপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ডেকে নিয়ে যান। এসময় তার সহযোগি শফিকুল ইসলাম ওই বিদ্যালয়ে অবস্থান করছিল। সেখানে গেলে নৈশ প্রহরী আয়নাল হক বিদ্যালয়ের প্রধান ফটক খুলে দেন এবং ওই দুই যুবকের পরামর্শ অনুযায়ী গৃহবধূকে বিদ্যালয়ের চারতলা ভবনের একটি কক্ষে নিয়ে আটকে রাখেন। ওই দিন আনুমানিক রাত সাড়ে আটটার দিকে কামরুজ্জামান, শফিকুল ও নৈশ প্রহরী আয়নাল ওই গৃহবধুকে জোরপূর্বক গণধর্ষণ করেন। পরে গৃহবধূকে বিদ্যালয় থেকে বের করে দেন এবং ঘটনার কথা কাউকে না বলার জন্য হুমকি দেন। ভুক্তভোগী বাড়িতে ফিরে অভিভাবকদের কাছে ধর্ষণের ঘটনাটি অবগত করেন। এঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ৩ জনকে আসামী করে গত ৩০ নভেম্বর মঙ্গলবার শ্রীবরদী থানা একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাতেই ৩ জনকে আটক করে।
শ্রীবরদী থানা অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আবুল হাশিম বলেন, ভুক্তভোগী গৃহবধূ বাদী হয়ে তিন জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাতনামা এক-দুইজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় মামলা করেছেন। ডাক্তারি পরীক্ষা করার জন্য ভুক্তভোগীকে জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আটককৃত আসামীদের শেরপুর কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply




© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY SheraWeb.Com