ঢাকা July 14, 2024, 7:31 pm
  1. Arts & EntertainmentCelebrities
  2. blog
  3. অন্যান্য
  4. অপরাধ
  5. আইন – আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. উপ-সম্পাদকীয়
  9. কবিতা
  10. কৃষি
  11. কৃষি ও কৃষক
  12. কৌতুক
  13. খেলা ধূলা
  14. খেলাধুলা
  15. গণমাধ্যম
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সহকারী প্রধান শিক্ষকের নিয়োগ বাতিল ও প্রধান শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক ।।
জামালপুরের মেলান্দহে নিয়ম বহির্ভুত সহকারী প্রধান শিক্ষকের অবৈধ নিয়োগ বাতিলের দাবিতে এবং প্রধান শিক্ষক মুখলেছুর রহমানের অনিয়ম,দূর্নীতি ও অর্থ আত্বসাতের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ছাত্র-শিক্ষক ও এলাকাবাসী।
রবিবার দুপুরে  জেলার মেলান্দহের খাশিমারা পুঠিয়া পাড়া উচ বিদ্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত হয়।
ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, স্কুলের জমিদাতা হারুনুর রশিদ সেলিম, দৌলতুজ্জামান মেম্বার ফুরাতুজ্জামান,আইয়ুব আলী,, শিক্ষক হাসানুজ্জামান,ময়েনুল ইসলাম,আব্দুল মতিন বিএসসি প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, খাশিমারা পুঠিয়াপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুখলেছুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে দূর্নীতি, নিয়োগ বানিজ্য, স্কুল ফান্ডের অর্থ আত্বসাৎ ও অনিয়ম-অব্যবস্থাপনার মধ্য দিয়ে স্কুল পরিচালনা করে আসছে। ম্যানেজিং কমিটিকে ম্যানেজ করে নিয়ম বহির্ভুতভাবে ২০ লাখ টাকার বিনিময়ে সহকারী প্রধান শিক্ষক ও ৩জন আয়া নিয়োগ দিয়েছেন তিনি।
শিক্ষকরা আরো বলেন, সহকারী প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন ৩জন শিক্ষক। পরীক্ষার কোন রেজাল্ট না দিয়ে ২০ লাখ টাকার বিনিময়ে গোপনে কামরুল হাসানকে নিয়োগ পত্র দিয়েছেন প্রধান শিক্ষক মুখলেছুর রহমান। সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক কামরুল হাসানের নিয়োগ বাতিল ও দূর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষকের অনিয়মও দূর্নীতি তদন্ত করে শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় প্রশাসনের প্রতি।
এদিকে মানববন্ধন চলাকালে সদলবলে সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক যোগদান করতে আসলে প্রতিবাদমুখর হয়ে উঠে শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীরা। এসময় দুপক্ষের মধ্যে তুমুল হট্রগোলের সৃষ্টি হয়।
এই দুপক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
অভিযোগ প্রসঙ্গে খাশিমারা পুঠিয়া পাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: মুখলেছুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সঠিক নয়। সহকারী প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় কোন প্রকার অর্থলেনদেন হয়নি বলে দাবি করেন তিনি।