শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:১৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
রঙিন ফুলকপি চাষ করে জীবন রাঙাতে চায় ঝিনাইগাতীর শফিকুল  ১নং কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল সফলতার সাথে ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কাজ করে আজ প্রথম বছর পেরিয়ে দ্বিতীয় বছরে পদার্পণ হাজীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ কেন্দুয়া বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিলেন কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম খান সোহেল কুটামনি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত কেন্দুয়া বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরন বকশীগঞ্জ আ.লীগ সভাপতির বাসায় দূর্ধষ ডাকাতি জামালপুরের মেষ্টা ইউনিয়নে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, ধর্ষক চাচা গ্রেপ্তার জামালপুরে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ৩২তম বার্ষিক সদস্য সভা অনুষ্ঠিত কুটামনি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র—ছাত্রীদের বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত
প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পেলেই এইচএসসির ফল

প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পেলেই এইচএসসির ফল

স.স.প্রতিদিন ডেস্ক ।।

অবশেষে বিশেষ পরিস্থিতিতে পরীক্ষা ছাড়াই ফল প্রকাশের আইনের গেজেট প্রকাশিত হয়েছে। এই গেজেট প্রকাশের ফলে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসএসি) ও এসএসসি পরীক্ষার ভিত্তিতে এইচএসসির ফল প্রকাশে আর কোনো বাধা রইল না। এখন প্রধামন্ত্রীর সম্মতি পেলেই এইচএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ করা হবে।পরীক্ষা ছাড়া ২০২০-এর এইচএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ করতে আইন সংশোধন করে গেজেট প্রকাশ করেছে সরকার। সংসদে পাশ হওয়া তিনটি বিলে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ স্বাক্ষর করার পর গত সোমবার রাতে তা গেজেট আকারে জারি করা হয়। ‘ইন্টারমিডিয়েট অ্যান্ড সেকেন্ডারি এডুকেশন (অ্যামেন্ডমেন্ট) অ্যাক্ট, ২০২১’; ‘বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড (সংশোধন) অ্যাক্ট, ২০২১’; ‘বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড (সংশোধন) অ্যাক্ট, ২০২১’; সংশোধন করে গেজেট প্রকাশ করা হয়েছে। আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সূত্র জানায়, এখন নিয়মানুযায়ী এইচএসসির ফল প্রকাশের জন্য প্রধানমন্ত্রীর সময় চেয়ে চিঠি পাঠানো হবে। তিনি যেদিন সম্মতি দেবেন, সেদিনই ফল প্রকাশ করা হবে। সেক্ষেত্রে আগামী শনি-রবিবার বা অন্য যেদিনই প্রধানমন্ত্রী সম্মতি দেবেন, সেদিনই ফল প্রকাশ করা হবে। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ জানান, গেজেট প্রকাশের পর কিছু প্রক্রিয়া রয়েছে। এখন এই কাজগুলো করা হচ্ছে। আর ফল প্রস্তুত রয়েছে। বিশেষজ্ঞ কমিটি কাজ করছে। অতিদ্রুত সময়ে ফল প্রকাশ করা হবে বলে তিনি জানান। আইনগুলো সংশোধন হওয়ায় এখন বিশেষ পরিস্থিতিতে অতিমারি, মহামারি, দৈব দুর্বিপাকের কারণে বা সরকার কর্তৃক সময়ে সময়ে নির্ধারিত কোনো পরীক্ষা অনিবার্য পরিস্থিতিতে গ্রহণ করা সম্ভব না হলে কোনো বিশেষ বছরে শিক্ষার্থীদের জন্য পরীক্ষা ছাড়াই বা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পরীক্ষা গ্রহণ করে মূল্যায়ন ও সনদ প্রদান করা যাবে। গত বছর ১১টি শিক্ষা বোর্ডের ১৩ লাখ ৬৫ হাজার ৭৮৯ জন শিক্ষার্থীর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply




© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY SheraWeb.Com